‘সুপ্রিম’ স্বস্তি পেলেন অভিষেক, ইডি এই মুহূর্তে কিছু করতে পারবে না

‘সুপ্রিম’ স্বস্তি পেলেন অভিষেক, ইডি এই মুহূর্তে কিছু করতে পারবে না

কলকাতা: তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে শুক্রবার ফের ইডি তলব করায় জল্পনা বৃদ্ধি হয়েছিল। বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এই আবহেই মন্তব্য করেন যে, বড় কিছু হতে পারে আজ। তাঁর মন্তব্যের পরেই আলোচনা শুরু হয় যে বড় কোনও পদক্ষেপ ইডি নেবে কিনা অভিষেকের বিরুদ্ধে। কিন্তু আজ তা হওয়ার নয়। এমনকি আগামী সোমবার পর্যন্ত কিছুই হওয়ার নয়। দেশের শীর্ষ আদালতে বিরাট স্বস্তি পেয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইট করে এমনটাই জানিয়েছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ।

আরও পড়ুন- চাকরির নামে প্রতারণার করে ফেরার পার্থ-ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতা! টাকা ফেরাচ্ছেন দলেরই এক উপপ্রধান

বার বার ইডির দিল্লি অফিসে ডেকে পাঠানোর বিরোধিতা করে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লি হাইকোর্ট হয়ে সেই মামলা গিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। আজ কলকাতাতে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ইডি। এই আবহেই সুপ্রিম কোর্ট বড় নির্দেশ দিয়েছে। জানান হয়েছে, এই মামলায় আগামী সোমবার পর্যন্ত অভিষেকের বিরুদ্ধে কোনও কড়া ব্যবস্থা নেওয়া যাবে না। সেদিন এই মামলার পরবর্তী শুনানি। তাই সোমবার পর্যন্ত স্বস্তি পেলেন তৃণমূল সাংসদ। যদিও বাম এবং কংগ্রেসের দাবি, এই ইডি তলবও সেটিং! বিজেপি এবং তৃণমূল আঁতাত আছে। যদিও বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের যুক্তি, আঁতাত যদি হত তাহলে পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অনুব্রত মণ্ডল গ্রেফতার হতেন না। কোনও বোঝাপড়া নেই সেটা আগেও বলা হয়েছে এবং তার প্রমাণও আছে।

উল্লেখ্য, কয়লা পাচার-কাণ্ডে শুক্রবার সল্টলেক সিজিও কমপ্লেক্সে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি)-এর দফতর হাজিরা দেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সকাল পৌনে ১১টা নাগাদ সিজিও কমপ্লেক্সে পৌঁছে যান তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। কড়া নিরাপত্তায় ঘিরে ফেলা হয় ইডি দফতর৷ তিনি হাজিরা দেবেন কিনা, তা নিয়েই ছিল সংশয়৷ তবে এদিন নির্ধারিত সময়ের আগেই ইডি-র দফতরে পৌঁছে যান তৃণমূল সাংসদ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *