CBI, NIA তদন্ত হোক! যাদবপুর ইস্যুতে মামলার সংখ্যা বাড়ছে হাইকোর্টে

CBI, NIA তদন্ত হোক! যাদবপুর ইস্যুতে মামলার সংখ্যা বাড়ছে হাইকোর্টে

কলকাতা: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে সার্বিকভাবে উত্তেজনা যেমন বাড়ছে রাজ্যে, অন্যদিকে আদালতে মামলার সংখ্যাও বাড়ছে। ইতিমধ্যেই কলকাতা হাইকোর্টে দুটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল যাদবপুর কাণ্ড নিয়ে। শনিবার তৃতীয় জনস্বার্থ মামলা দায়ের হল। বিশ্ববিদ্যালয়েরই এক প্রাক্তন ছাত্র মামলা দায়ের করেছেন বলে জানা গিয়েছে। আগামী সোমবার এই মামলার শুনানিতে হতে পারে। 

প্রথম বর্ষের এক পড়ুয়ার মৃত্যু নিয়ে তদন্ত চলছে জোরকদমে। যাদবপুরের ঘটনায় ১২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আরও বেশ কয়েকজন পুলিশি নজরে আছে। পাশাপাশি জিজ্ঞাসাবাদ হচ্ছে পড়ুয়াদেরও। এই আবহে বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় র‍্যাগিংয়ের বিষয় নিয়ে মামলা দায়ের হয় কলকাতা হাইকোর্টে। তারপর জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এবার সিবিআই, এনআইএ এবং এনসিবি দ্বারা তদন্তের আবেদন জানিয়ে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে মামলা দায়ের করা হয়েছে। উল্লেখ্য, তৃণমূলের ছাত্র পরিষদের সহ সভাপতি সুদীপ রাহার মামলা এবং প্রথম যে মামলা দুটিই প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানম এবং বিচারপতি হিরণ্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে করা হয়েছে। তৃণমূলের মামলায় আবার পার্টি করা হয়েছে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসকেও। 

শুক্রবার রাতেই যাদবপুরের পড়ুয়ার রহস্য মৃত্যুর ঘটনায় আরও ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। একাধিক ক্ষেত্রে বয়ানে অসঙ্গতি থাকায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়া প্রথম বর্ষের পড়ুয়াদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। নতুন করে জিজ্ঞাসাবাদে তারা আরও জানতে পেরেছে, সিনিয়রদের অনুমতি ছাড়া বাড়িতে ফোন করতে পারত না তারা। এমনকি ফোন করার সময়ে সিনিয়ররা উপস্থিত থাকত কথা শোনার জন্য। পাশাপাশি হস্টেলের ঘর থেকে শুরু করে শৌচালয় সবই তাদের পরিষ্কার করতে হত। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *