বিধানসভায় যাদবপুর ইস্যুতে হইচই, ওয়াকআউট বিজেপির

বিধানসভায় যাদবপুর ইস্যুতে হইচই, ওয়াকআউট বিজেপির

কলকাতা: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় বাংলার রাজনৈতিক মহল তো উত্তেজিত, তার আঁচ এবার পড়ল বিধানসভাতেও। মঙ্গলবার বিধানসভায় যাদবপুর কাণ্ডের প্রতিবাদে কালো কাপড় পরে আসেন বিজেপি বিধায়করা। এমনকি মুলতুবি প্রস্তাবও আনেন তারা। কিন্তু এরপরেই শাসক দলের বিধায়কদের সঙ্গে তাদের তুমুল বাকযুদ্ধ হয়। শেষে বিধানসভা ওয়াকআউট করে বিজেপি। 

প্রথম থেকে যাদবপুর ইস্যুতে রাজ্য সরকার এবং শাসক দলকে নিশানা করছে বিজেপি সহ বিরোধীরা। তাদের ব্যর্থতার কারণেই এই ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি। একই সঙ্গে ছাত্র মৃত্যুর এই ঘটনায় সিবিআই, এনআইএ তদন্ত চেয়ে আদালতে মামলাও দায়ের হয়েছে। অন্যদিকে, বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী খোদ যাদবপুরে মাওবাদী যোগ নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। এই প্রেক্ষিতে আজ বিধানসভায় এই ইস্যুতে তোলপাড় হওয়া প্রায় নিশ্চিত ছিল। প্রত্যাশিতভাবেই আজ বিধানসভায় মুলতুবি প্রস্তাব আনে বিজেপি। রাজ্য কী ব্যবস্থা নিয়েছে, তা জানতে চান বিজেপি বিধায়করা। তারপরেই কার্যত বাকযুদ্ধ বাঁধে। 

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বক্তব্য, যাদবপুরের ক্ষেত্রে ইউজিসি নিয়ম দীর্ঘদিন মানা হয়নি। ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে থানা। তাও অভিযোগ আসলেও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। একই সঙ্গে তাঁর কথায়, ওখানে এমন কিছু পড়ুয়া আছে যারা দেশবিরোধী কথা বলে মাঝেমাঝে। পাল্টা শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন, যাদবপুরের কথা বললে খড়গপুরের কথাও বলতে হয়। তাঁর অভিযোগ, বিজেপি একপক্ষ নিয়ে রাজনীতি করছে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *