জয়নগরে ত্রাণ বিতরণের অনুমতি মিলল, যাবে সিপিএমের ৫ প্রতিনিধি

জয়নগরে ত্রাণ বিতরণের অনুমতি মিলল, যাবে সিপিএমের ৫ প্রতিনিধি

কলকাতা: জয়নগরে তৃণমূল নেতা খুনের ঘটনায় পুলিশের অতি সক্রিয়তা ইস্যুতে অভিযোগ এনে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল সিপিএম। তারা আদালতে জানিয়েছিল, বারুইপুর জেলা এসপি এবং জয়নগর থানার পুলিশের কাছে আর্জি ছিল এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করার। কিন্তু পুলিশ সেই অনুমতি তো দেয়নি, উল্টে তারা আক্রমণের মুখে পড়ে এলাকায়। এই মামলায় আদালত ত্রাণ বিতরণের অনুমতি দিয়েছে তাঁদের। 

হাইকোর্টের বিচারপতি রাজা শেখর মান্থার ডিভিশন বেঞ্চে মামলা দায়ের করেছিলেন সিপিআইএম নেতা সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি ছিল, পুলিশি অতিসক্রিয়তার জন্যই সিপিআইএমের তিনজন কর্মীকে ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ এই মামলার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়েছে, ৫ জন প্রতিনিধি এলাকায় যেতে পারবেন ত্রাণ বিতরণ করতে। তবে কোনও রাজনৈতিক দলের প্রচার, বক্তব্য অথবা কোনও দলীয় পতাকা ব্যবহার করতে পারবেন না ত্রাণ বিতরণকারীরা। 

আসলে সরকারি আইনজীবীর বক্তব্য ছিল, রাজ্যের মানুষ জানেন এই মুহূর্তে কী অবস্থা জয়নগর এলাকায়। সেখানে বাইরের কাউকেই প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। তাতে সেখানে হিংসা ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করছে পুলিশ। কিন্তু এতে পাল্টা বিচারপতি প্রশ্ন করেন, যা পরিস্থিতি সেখানে যদি ত্রাণ বিতরণ করতে যায় তাহলে সমস্যা কোথায়? এরপরই তিনি তাঁর নির্দেশ দেন। পাশপাশি জানান, বারুইপুর জেলা পুলিশকে যাঁরা ত্রাণ দিতে যাবেন তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *