প্রত্যেক মহিলাকে আইনের আওতায় আনাটাই বড় চ্যালেঞ্জ, অভিমত বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের

প্রত্যেক মহিলাকে আইনের আওতায় আনাটাই বড় চ্যালেঞ্জ, অভিমত বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের

কলকাতা: দেশের নারী অধিকার রক্ষা আইন নিয়ে ভিন্ন মত রয়েছে ভিন্ন মহলে। সেই প্রসঙ্গে এবার মন্তব্য করলেন কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

সোমবার ছিল রাজা রামমোহন রায়ের ২৫১তম জন্মদিন। সেই উপলক্ষেই রামমোহন লাইব্রেরি এবং ফ্রি রিডিং রুম আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন বিচারপতি৷ সেখানে বক্তব্য রাখার সময় তিনি স্বীকার করে নেন যে, যুগ যুগ ধরে পিতৃতান্ত্রিক সমাজে বঞ্চনার শিকার হয়ে আসছেন নারীরা৷ তাঁদের উপর চলেছে দমন-পীড়ন৷ কথা প্রসঙ্গেই ১৯৬১ সালের মাতৃত্ব কল্যাণ আইন কার্যকর করা নিয়েও মন্তব্য করেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি বলেন, আমাদের দেশে সংবিধান কার্যকর হয়েছিল ১৯৫০ সালে। কিন্তু মহিলাদের গর্ভাবস্থাকালীন ছুটির বিষয়টি ভাবতে আরও ১১ বছর সময় লেগে গিয়েছিল। তবে এখনও সমস্ত মহিলারা মাতৃত্বকালীন ছুটি পান না। তার অন্যতম কারণ হল দারিদ্র। সমাজের নিচুতলার মানুষরা এখনও গর্ভাবস্থায় এবং মাতৃত্বকালীন ছুটির সুযোগ পান না বলেই উল্লেখ করেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়।

মাতৃত্বকালীন ছুটির পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে মহিলাদের যে ভাবে হেনস্থা হতে হয়, সে বিষয়েও আক্ষেপ প্রকাশ করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর আক্ষেপ, এখনও আমাদের দেশে বহু মহিলা মানসিক নির্যাতন সম্পর্কে সচেতন হয়ে উঠতে পারেননি। দিনের পর দিন মুখ বুজে অত্যাচার সহ্য করে চলেছেন তাঁরা। বিচাপতির অভিমত, ভারতের তুলনায় পশ্চিমা দেশগুলি যেমন ইউরোপ-আমেরিকার মহিলারা অনেক নির্যাতন নিয়ে সচেতন। শিশু ও মহিলাদের জন্য আরও বেশ কিছু আইন প্রণয়নের প্রয়োজন রয়েছে বলেও এদিন উল্লেখ করেন তিনি৷ 
 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *