অনুব্রত দুর্গে মহিলাদের অস্ত্র নিয়ে রাস্তায় নামার নির্দেশ লকেটের

বীরভূম: একই জনসভায় দুই বিজেপি নেতা-নেত্রীর মন্তব্যে তীব্র বিতর্ক। বীরভূম জেলা বিজেপির সম্পাদক কালোসোনা মণ্ডল ‘তৃণমূলকে মারলে কেস হবে, পুলিসকে মারলে কিছু হবে না। তাই বলছি, মারলে পুলিস মারুন’ মন্তব্যের পর এবার মহিলা মোর্চার রাজ্য সভাপতি লকেট চট্টোপাধ্যায় মহিলাদের অস্ত্র নিয়ে রাস্তায় নামার উপদেশ দিলেন। এদিন প্রথমে তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে আক্রমণ করেন

অনুব্রত দুর্গে মহিলাদের অস্ত্র নিয়ে রাস্তায় নামার নির্দেশ লকেটের

বীরভূম: একই জনসভায় দুই বিজেপি নেতা-নেত্রীর মন্তব্যে তীব্র বিতর্ক। বীরভূম জেলা বিজেপির সম্পাদক কালোসোনা মণ্ডল ‘তৃণমূলকে মারলে কেস হবে, পুলিসকে মারলে কিছু হবে না। তাই বলছি, মারলে পুলিস মারুন’ মন্তব্যের পর এবার মহিলা মোর্চার রাজ্য সভাপতি লকেট চট্টোপাধ্যায় মহিলাদের অস্ত্র নিয়ে রাস্তায় নামার উপদেশ দিলেন।

এদিন প্রথমে তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে আক্রমণ করেন তিনি। বলেন, ‘বীরভূম জেলার সবথেকে নোংরা রাজনৈতিক মুখ হল অনুব্রত মণ্ডল। মহিলাদের সম্মান দিয়ে কথা বলেন না তিনি’। এরপর লকেটের সংযোজন, ‘ ভেঙে দিন, গুঁড়িয়ে দিন প্রশাসন কিছু করতে পারবে না’।

জনসভা থেকে পুলিস মারার নিদান দিলেন বীরভূম জেলা বিজেপির সম্পাদক কালোসোনা মণ্ডল। রবিবার বীরভূমের রামপুরে এক জনসভায় তিনি বলেন, ‘পুলিশের কাছে ভালো কিছু পেতে হলে আপনাদের দরকার ডাং, হেঁসো ধরনের ধারালো অস্ত্র। আপনারা তৃণমূলকে মারবেন না, পুলিসকে মারুন। কারণ তৃণমূলকে মারলে কেস হবে, পুলিসকে মারলে কিছু হবে না। তাই বলছি, মারলে পুলিস মারুন’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *