DA-র দাবিতে আন্দোলনে নামায় শাসক দলের নেতাকেই বদলি নবান্নের

কলকাতা: যেদিন থেকে ক্ষমতায় এসেছে সেদিন থেকেই আন্দোলন বিরোধী মনভাব দেখিয়েছে রাজ্যের তৃণমূল সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তার রাজ্যে প্রতিবাদ বা আন্দোলন করলে জোটে নানা ধরনের তকমা, আর প্রতিবাদী যদি সরকারি কর্মচারী হন তাহলে তো আর কথাই নেই। সার্ভিস-ডে থেকে একদিন বাদ, বদলি সহ জোটে অন্যান্য আরও অনেক উপসংহার। এরকমই আরও এক ঘটনা ঘটল খোদ

DA-র দাবিতে আন্দোলনে নামায় শাসক দলের নেতাকেই বদলি নবান্নের

কলকাতা: যেদিন থেকে ক্ষমতায় এসেছে সেদিন থেকেই আন্দোলন বিরোধী মনভাব দেখিয়েছে রাজ্যের তৃণমূল সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তার রাজ্যে প্রতিবাদ বা আন্দোলন করলে জোটে নানা ধরনের তকমা, আর প্রতিবাদী যদি সরকারি কর্মচারী হন তাহলে তো আর কথাই নেই। সার্ভিস-ডে থেকে একদিন বাদ, বদলি সহ জোটে অন্যান্য আরও অনেক উপসংহার। এরকমই আরও এক ঘটনা ঘটল খোদ নবান্নে।

শুক্রবার রাজ্য সরকারি কর্মীদের অধিকারের দাবিতে আন্দোলন করায় নবান্ন থেকে বদলি করা হল শাসক দলেরই কর্মী সংগঠনের এক নেতাকে। সঞ্জীব পাল নামে ওই নেতা নবান্নে তৃণমূল পরিচালিত রাজ্য সরকার কর্মচারী ইউনিয়ন ফেডারেশন অফ এমপ্লইজ ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক। এদিন তিনি অভিযোগ করেন সরকারি কর্মচারীদের হয়ে আন্দোলনে সামিল হওয়ায় তাঁকে পরিবহণ দফতরে বদলি করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে শুক্রবার নবান্নের সামনে বাসস্ট্যান্ডে বিক্ষোভ দেখান সঞ্জীববাবুর সমর্থকরা। নবান্নের চোদ্দ তলায় মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে কাজ করতেন তিনি।

কিন্তু শাসকদলের কর্মী সংগঠনের নেতা হলেও কর্মীদের স্বার্থে আন্দোলনে পথে নামা যাবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয় সরকারের পক্ষ থেকে। এই ঘটনার পরই মুখ খোলেন সঞ্জীববাবু। তিনি অভিযোগ করেন আন্দোলন না করলে দাবি আদায়ের পথ কি। তিনি জানান যে বাম সরকারের আমলে মহাকরণে বহুবার তাঁদের বিরুদ্ধে আন্দোলনে সামিল হয়েছেন কিন্তু কখনও এমনভাবে আন্দোলনের কণ্ঠরোধ করা হয়নি, এমনকি কখনো এমন পরিস্থিতির মুখেই পড়তে হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *