হাজিরা দিতে হবে না হাইকোর্টে! আপাতত স্বস্তি রুজিরার

হাজিরা দিতে হবে না হাইকোর্টে! আপাতত স্বস্তি রুজিরার

কলকাতা: দিল্লি হাইকোর্টে স্বস্তি পেলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লির পাতিয়ালা হাউজ কোর্টে তাঁকে হাজিরা দিতে হবে না বলে জানান হয়েছে। আগামীকাল তাঁকে সেখানে সশরীরে হাজিরা দিতে হত। কিন্তু এখন আর তাঁকে হাজিরা দিতে হবে না। এই নির্দেশ দিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট। বরং তাঁর আইনজীবী উপস্থিত হবেন আদালতে, জানা গিয়েছে এমনটাই। 

কয়লাকাণ্ডে পাতিয়ালা হাউস কোর্টে হাজিরার নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ রুজিরা জানিয়েছিলেন যে, কোনও মহিলাকে অন্য রাজ্য থেকে তলব করার আগে তদন্ত করতে হয়৷ এক্ষেত্রে সেটা করা হয়নি৷ ১২ অক্টোবর অর্থাৎ আগামীকাল রুজিরাকে সশরীরে হাজিরা দিতেই হবে, এমনই নির্দেশ দিয়েছিল পাতিয়ালা হাউস কোর্ট৷ তবে আপাতত সেটি করতে হচ্ছে না। পাতিয়ালা হাউস কোর্টের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে একটি পিটিশন ফাইল করেছিলেন অভিষেক পত্নী রুজিরা। এই পিটিশনে পাতিয়ালা হাউস কোর্টের নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ চেয়েছিলেন তিনি৷ এক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি দিক তুলে ধরা হয়েছিল৷ রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবীদের দাবি ছিল, আইন বলছে রাজ্যের বাইরে থেকে কোনও মহিলাকে সমন পাঠানো হলে প্রথমে তদন্ত করতে হয়৷ তদন্ত করে দেখে নিতে হয় ওই মহিলার কোনও অসুবিধা রয়েছে কিনা৷ এর পরেই কিন্তু তলব করা যায়৷ এক্ষেত্রে সেই নিয়ম মানেনি ইডি৷

দ্বিতীয়ত বলা হয়েছিল, তদন্তে সব রকম সহযোগিতা করেছেন রুজিরা৷ এমনকি পাতিয়ালা হাউস কোর্টেও শুনানি চলার সময় তিনি ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে হাজির হয়েছিলেন৷তাই করোনা আবহে নিজের সন্তানদের ফেলে দিল্লি যাওয়া সম্ভব নয়৷ তাই আজ দিল্লি হাইকোর্ট কার্যত রুজিরার অনুকূলেই নির্দেশ দিয়েছে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি দশেরার পর হওয়ার সম্ভবনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *