‘উন্নয়নের জোয়ারে’ও মমতার শহরে বাড়ছে ‘গরিবে’র সংখ্যা

কলকাতা: রাজধানী কলকাতায় লাফিয়ে বাড়ছে গরিবের সংখ্যা৷ পরিস্থিতি যা, তাতে আরও ১৮,৮৮৭ জনের নাম অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে বিপিএল তালিকায়৷ ২০১৫ সালের পর এই প্রথম শহর কলকাতার দারিদ্রসীমার নীচে বসবাসকারীরদের তালিকা সংশোধনের কাজ শুরু হয়েছে৷ আর তাতেই উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য৷ যদিও, বিপিএল তালিকায় নাম তোলার পিছনে বেশ কিছু শর্ত চাপিয়ে ছিল পুরসভা৷ শর্তে বলা হয়,

‘উন্নয়নের জোয়ারে’ও মমতার শহরে বাড়ছে ‘গরিবে’র সংখ্যা

কলকাতা: রাজধানী কলকাতায় লাফিয়ে বাড়ছে গরিবের সংখ্যা৷ পরিস্থিতি যা, তাতে আরও ১৮,৮৮৭ জনের নাম অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে বিপিএল তালিকায়৷ ২০১৫ সালের পর এই প্রথম শহর কলকাতার দারিদ্রসীমার নীচে বসবাসকারীরদের তালিকা সংশোধনের কাজ শুরু হয়েছে৷ আর তাতেই উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য৷ যদিও, বিপিএল তালিকায় নাম তোলার পিছনে বেশ কিছু শর্ত চাপিয়ে ছিল পুরসভা৷ শর্তে বলা হয়, পাকাবাড়ি থাকলে অথবা ঘরের ছাদ পাকা হলে বা স্কুটার, ফ্রিজ, টেলিভিশন থাকলে নাম অন্তর্ভুক্ত করা যাবে না৷ কিন্তু, বাস্তবে দেখা যায়, শর্ত আরোপ করে শহর কলকাতায় এমন কোনও পরিষেবা পান না অন্তত ১৮,৮৮৭ জনের বেশি মানুষ৷

পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৫-য় কলকাতা পুর-এলাকায় বিপিএলভুক্তের সংখ্যা ছিল ২,৮৯,০৭৫। ২০১৪ -১৫ সালে তালিকা সংশোধনের পরে ৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছিল। নতুন করে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল ২৪,৬৮৮ জনের নাম। এ বার নতুন সংশোধনীতে ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ার কথা। অর্থাৎ গত বারের তুলনায় দু’শতাংশ কম। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে নিন্দুকদের দাবি, বাংলায় যখন উন্নয়নের জোয়ার চলছে, তখন কীভাবে বাড়ছে গরিবের সংখ্যা? তাহলে কী খোদ শহর কলকাতায় থমকে উন্নয়নের জয়যাত্রা?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *