ঠিক কোন কারণে বন্ধ হল ২০০০ টাকার নোট?

ঠিক কোন কারণে বন্ধ হল ২০০০ টাকার নোট?

নয়াদিল্লি: নতুন করে আর ২০০০ টাকার নোট ছাপানো হবে না। আগামী অক্টোবর মাস থেকে বাজার থেকে বাতিল হচ্ছে এই নোট। সম্প্রতি আরবিআই এই বিষয়ে ঘোষণা করার পরেই নানা প্রশ্ন উঠে আসছে। ২০১৬ সালে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার পুরনো ৫০০ টাকার নোট বদলে নতুন নোট আনে এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিল করে আনা হয় ২০০০ টাকার নোট। ৭ বছরের মাথায় নতুন এই নোটও বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। কিন্তু কেন এমন ভাবনা আরবিআই-এর? 

বিশ্লেষকরা জানাচ্ছেন, দীর্ঘ দিন থেকেই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক একটি ‘ক্লিন নোট’ পলিসি মেনে আসছে, এক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। অনুমান করা হচ্ছে, যে উদ্দেশ্য নিয়ে ২০০০ টাকার নোট চালু করা হয়েছিল, সেই উদ্দেশ্য পূরণ হয়ে গিয়েছে। তাই আর এই নোটের প্রয়োজন পড়বে না, সেই কারণেই বাজার থেকে তা প্রত্যাহার করা হচ্ছে। এটা তো আগে থেকেই জানা যে, বিগত কয়েক বছর ধরেই এই নোট ছাপানো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। এখন আপাতত যে’কটা নোট বাজারে আছে বা চলছে তা জমা করে নিতে চায় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। তবে এই মুহূর্তে চিন্তার কিছু নেই। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই নোটগুলি জমা দেওয়া অথবা বিনিময় করে নিতে হবে।