শিক্ষা বিনাশের লক্ষ্যে বিনিময় প্রথা! রাজ্যকে বিঁধে বিরোধিতায় STEA

শিক্ষা বিনাশের লক্ষ্যে বিনিময় প্রথা! রাজ্যকে বিঁধে বিরোধিতায় STEA

কলকাতা: রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থার হাল নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরেই সরব হচ্ছে মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতি বা STEA। তাঁদের পক্ষ থেকে বারংবার রাজ্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করা হয়েছে যাতে শিক্ষার মান উন্নত করা যায়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত শত চেষ্টাতেও কোনও গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেয়নি সরকার। একই সঙ্গে দাবিও গ্রাহ্য হয়নি। এবার শিক্ষা বিনাশের লক্ষ্যে বিনিময় প্রথার অভিযোগ তুলে গর্জে উঠল সংগঠন।  

মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির সাধারণ সম্পাদক নীলকান্ত ঘোষ জানাচ্ছেন, নিয়োগ দুর্নীতির শিকড় উপড়ে ফেলার জন্য যথোপযুক্ত ব্যবস্থা না নিয়ে কখনও সার্ভিস প্লেসমেন্ট অথবা প্রশাসনিক বদলির মতো পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে যা শিক্ষামন্ত্রক বা সামগ্রিকভাবে সরকারের দিশাহীনতার প্রকাশ। এছাড়া প্রতি বছর হাজার হাজার শিক্ষক-শিক্ষিকার অবসরজনিত শূন্যস্থান পূরণ করার কোনও চেষ্টা গ্রহণ করা হচ্ছে না সরকারের তরফে, এদিকে গরিব মধ্যবিত্তের কাছ থেকে শিক্ষাকে কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। সংগঠনের আরও দাবি, বিনিময় প্রথা সমগ্র শিক্ষা ব্যবস্থাকে বেসরকারিকরণের দিকে ঠেলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা ছাড়া আর কিছু নয়। 

তারা এখানেই না থেমে আরও বলছে যে, কেন্দ্রীয় সরকার প্রবর্তিত জাতীয় শিক্ষানীতিকে সমর্থন করে বিনিময় প্রথা, আর NDA বিরোধী জোটে শামিল হওয়া প্রশাসনের নীতিহীনতাকে প্রকট করছে। সংগঠনের মতে, বিষয়টি নিয়ে বলার মতো সরল, সাহসী মানুষের অভাবের জন্যই সরকার পোষিত ও সাহায্যপ্রাপ্ত বিদ্যালয়গুলির সর্বনাশ হচ্ছে। ওদিকে পর্ষদের কোনও ভাবনা-চিন্তাই লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *