দেশের ভালোর জন্যই ‘ইন্ডিয়া’, তৃতীয় জোট বৈঠকের আগে বললেন মমতা

দেশের ভালোর জন্যই ‘ইন্ডিয়া’, তৃতীয় জোট বৈঠকের আগে বললেন মমতা

মুম্বই: আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখেই বিজেপি বিরোধী জোট নতুন আঙ্গিকে তৈরি হয়েছে। পুরনো ইউপিএ ভুলে এখন বিরোধী শিবির হয়েছে ‘ইন্ডিয়া’। ইতিমধ্যে তারা দু’দফার বৈঠক সেরেও ফেলেছে। আজ তৃতীয় দফার বৈঠক মুম্বইয়ে। কিন্তু এই ‘ইন্ডিয়া’র লক্ষ্য কী? তা নিয়ে জল্পনা বাড়ছে কারণ, এখনও পর্যন্ত নরেন্দ্র মোদীর বিপক্ষে প্রধানমন্ত্রী মুখ কে, তা ঠিক করা যায়নি। কিন্তু জোটের আসল উদ্দেশ্য যে অন্য তা আজ স্পষ্ট করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

এদিন ‘ইন্ডিয়া’ জোটের বৈঠকে প্রবেশ করার আগে সংবাদমাধ্যমের সামনে মমতা জানান, দেশের যাতে সবচেয়ে ভাল হয়, তার জন্যই এই জোট, তার জন্যই এই লড়াই। এর আগে পটনা, বেঙ্গালুরুতে জোট বৈঠক হয়েছে। সেখান থেকেও দেশের ঐক্যের কথা বলেছে বিরোধীরা। দাবি করা হয়েছে, বিজেপি শুধু দেশের মধ্যে হিংসা, দ্বন্দ্ব তৈরি করতে চাইছে, কিন্তু সেটা হতে দেওয়া যায় না। আজ মুম্বইয়ের বৈঠকের আগেও একই ধরনের কথা বললেন তৃণমূল সুপ্রিমো। প্রসঙ্গত, বৈঠকে যোগ দিয়েছেন ২৮টি বিরোধী দলের প্রতিনিধিরা। কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়্গে থেকে শুরু করে, সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী, সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, অন্যদিকে লালু প্রসাদ যাদব এই বৈঠকে আছেন। 

তবে বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা তৈরি হয়েছে। বিজেপির দাবি বিরোধী জোটে ফাটল ধরতে শুরু করেছে। কারণ এই পদ নিয়ে মতবিরোধ দেখা দিচ্ছে। ঘটনা হল বিরোধী জোটে থাকা নেতা-নেত্রীরা বার বার জানিয়েছেন বিজেপিকে দিল্লি থেকে যদি সরানো যায় তখন প্রধানমন্ত্রী কে হবেন সেটা ঠিক করা যাবে। এত আগে থেকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে কাউকে তুলে ধরা হবে না। কংগ্রেস, তৃণমূল-সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলি এই ইস্যুতে তাই মুখ বন্ধ রেখেছে।   

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *